বদলী আদেশে না পাওয়ায় বরিশালে আসেননি সেই ম্যাজিস্ট্রেট

Barisal Crime Trace
প্রকাশিত এপ্রিল ২৫ রবিবার, ২০২১, ০২:০১ অপরাহ্ণ
বদলী আদেশে না পাওয়ায় বরিশালে আসেননি সেই ম্যাজিস্ট্রেট

এম.কে. রানা, বরিশাল ॥  নারী চিকিৎসকের সঙ্গে বিতর্কে জড়ানো সেই নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট শেখ মো. মামুনুর রশীদকে বরিশাল বিভাগে বদলি আদেশের পর আজ রবিবার (২৫এপ্রিল) প্রথম কার্যদিবসে যোগ দিতে পারেননি তিনি।

 

আর কবে নাগাদ বরিশালে যোগদান করবেন তাও নিশ্চিত করতে পারেনি বরিশালের অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার (সার্বিক) মো. আব্দুর রাজ্জাক। তবে ঢাকা জেলা প্রশাসন থেকে রিলিজ দেয়ার পর অবশ্যই নিয়মানুযায়ী বরিশালে যোগদান করবেন বলে জানিয়েছেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট শেখ মো. মামুনুর রশীদ। ঢাকা জেলা প্রশাসনের সহকারী কমিশনার হিসেবে দায়িত্ব পালন করছিলেন তিনি।

 

গত রবিবার (১৮ এপ্রিল) এলিফ্যান্ট রাজধানীর রোডে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনার সময় নিরাপত্তাচৌকিতে দায়িত্ব পালনরত নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও পুলিশের সাথে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ডা. সাঈদা শওকত জেনির পরিচয়পত্র দেখতে চাওয়া নিয়ে বাকবিতন্ডার ঘটনা ঘটে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ওই চিত্র ছড়িয়ে পড়ে। এ নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ব্যাপক আলোচনা হয়। এ ঘটনার পর চিকিৎসকদের শীর্ষ সংগঠন বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশন (বিএমএ) ও বাংলাদেশ পুলিশ সার্ভিস অ্যাসোসিয়েশন পাল্টাপাল্টি বিবৃতি দেয়।

 

এরপর গত বৃহস্পতিবার (২২ এপ্রিল) সেই নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটকে বরিশাল বিভাগীয় কমিশনার কার্যালয়ে বদলী করা হয়। এ বিষয়ে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের জ্যেষ্ঠ সচিব শেখ ইউসুফ হারুন গণমাধ্যমকে জানান, ‘স্বাভাবিক প্রক্রিয়ায় তাকে বদলি করা হয়েছে। তার বদলির বিষয়টি আগে থেকেই প্রক্রিয়াধীন ছিল।’

 

কেননা গত শুক্রবার (২৩ এপ্রিল) ঢাকা জেলা প্রশাসনের সহকারী কমিশনার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট শেখ মো. মামুনুর রশীদকে বদলির বিষয়ে সরাসরি মন্তব্য না করলেও জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন বলেছেন, সেদিনের চেকপোস্টে দলনেতা হিসেবে সেই ম্যাজিস্ট্রেট উপস্থিত ছিলেন। বিধায় দলনেতা হিসেবে তাকে দায় নিতে হবে। তাই ধারণা করা হচ্ছে সেই বাকবিতন্ডা ঘটনার প্রেক্ষিতেই শাস্তিমূলক এ বদলী আদেশ হয়েছে।

 

এ বিষয়ে জানতে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট শেখ মো. মামুনুর রশীদ এর ব্যবহৃত মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, এখনো তার বদলী আদেশের কপি হাতে পাননি। তাছাড়া ঢাকা জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে তাকে রিলিজ দেয়ার পর অবশ্যই নিয়মানুযায়ী তিনি বরিশালে যোগদান করবেন।




আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি বরিশাল ক্রাইম ট্রেস”কে জানাতে।
ই-মেইল করুনঃbarishalcrimetrace@gmail.com