তজুমদ্দিনে অভাবে চিকিৎসা করাতে না পেরে স্ত্রীর ওড়নায় স্বামীর আত্মহত্যা

Barisal Crime Trace
প্রকাশিত এপ্রিল ২৫ রবিবার, ২০২১, ০২:৩০ অপরাহ্ণ
তজুমদ্দিনে অভাবে চিকিৎসা করাতে না পেরে স্ত্রীর ওড়নায় স্বামীর আত্মহত্যা

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ ভোলার তজুমদ্দিন উপজেলায় টাকার অভাবে চিকিৎসা করাতে না পেরে স্ত্রীর ওড়না গলায় পেঁচিয়ে ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন এক যুবক।

 

শনিবার উপজেলার আড়াইলিয়া গ্রামে নিজ ঘর থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

 

নিহত যুবকের নাম আব্দুল খালেক (২৪)। তিনি ভোলার তজুমদ্দিন উপজেলার চাঁদপুর ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ডের দক্ষিণ আড়াইলিয়া গ্রামের আবু কালামের ছেলে।

 

জানা গেছে, গত ৪-৫ মাস আগে থেকে আব্দুল খালেকের মূত্রথলিতে ব্যথা। তিনি বরিশাল গিয়ে চিকিৎসা করান।  সে সময় তিনটি পাথর ধরা পড়ে।

কিছু দিন হলো বরিশালের এক চিকিৎসক একটি পাথর বের করে পাইপ লাগিয়ে দেন এবং বাকি পাথর বের করার জন্য আবারও যেতে বলেন। কিন্তু টাকার অভাবে আব্দুল খালেক বরিশাল যেতে পারছিলেন না।

 

গত শুক্রবার থেকে তার ব্যথা বেড়ে যায়। এতে রাতে তিনি ঘুমাতে পারেন না। সারারাত ব্যথার যন্ত্রণায় কাতরাতে থাকেন।

 

শনিবার দুপুরে বাড়ির সবাই অন্যের জমিতে ডাল ও মরিচ তুলতে গেলে এই সুযোগে তিনি স্ত্রীর ওড়না আড়ার সঙ্গে পেঁচিয়ে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেন।

 

তজুমদ্দিন থানার ওসি এসএম জিয়াউল হক জানান, নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ভোলা সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।




আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি বরিশাল ক্রাইম ট্রেস”কে জানাতে।
ই-মেইল করুনঃ[email protected]