পটুয়াখালীতে জামাইয়ের দায়ের কোপে শাশুড়ির মৃত্যু

Barisal Crime Trace
প্রকাশিত জুন ১৩ রবিবার, ২০২১, ০৪:৫৩ অপরাহ্ণ
পটুয়াখালীতে জামাইয়ের দায়ের কোপে শাশুড়ির মৃত্যু

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ পটুয়াখালীর দুমকিতে মোমেনা বেগম (৫০) নামের এক নারীকে দায়ের কোপে হত্যার অভিযোগ উঠেছে তার জামাইয়ের বিরুদ্ধে। জামাই মানসিক রোগী ছিলেন বলে জানা যায়।

শনিবার (১৩ জুন) রাত দেড়টায় উপজেলার মুরাদিয়া ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ড এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহত মোমেনা একই এলাকার বাসিন্দা কাঞ্চন গাজীর স্ত্রী।

জানা যায়, দীর্ঘদিন আগে উত্তর মুরাদিয়া ৩নং ওয়ার্ড কাঞ্চন গাজীর মেয়ের বিয়ে হয় চাঁদপুরের কচুয়া এলাকার বাসিন্দা মো. জামাল হোসেনের (৪০)। বিয়ের পর থেকে মেয়ে জামাই জামাল তার বাড়িতে থাকতেন।

গত তিন-চার দিন ধরে হঠাৎ মানসিক রোগ দেখা দেয় জামালের। তিনি না ঘুমিয়ে ঘরের মধ্যে হাটাহাটি করতেন। শনিবার রাতে তার শ্বাশুড়ি মোমেনা ঘুমাতে বললে তিনি দা দিয়ে তাকে এলোপাথাড়িভাবে কোপাতে শুরু করেন। এতে মোমেনার ঘাড়ে, পিঠে ও পায়ে মারাত্মক জখম হয়।

পরে একইদিন রাতেই মোমেনাকে প্রথমে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়া হয়। পরে তাকে বরিশাল শের-এ-বাংলা মেডিকেল কলেজ (শেবাচিম) হাসপাতালে পাঠানো হয়। সেখানে রোববার সকাল সাড়ে ৬টায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

মোমেনা বেগমের ছেলে মো. কামল বলেন, বোন জামাই আজ আমাদের এতিম করে দিয়েছে। সকাল সাড়ে ৬টায় মা মারা গেছেন। এখন শেবাচিম হাসপাতালের মর্গে ময়নাতদন্তের জন্য মাকে নিয়ে গেছে। ময়নাতদন্ত শেষে মরদেহ বাড়িতে নিয়ে যাব।’

দুমকী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মেহেদি হাসান বলেন, ‘মোমেনা বেগমকে তার জামাই কুপিয়ে জখম করেছেন। জামাই জামাল হোসেন মানসিক রোগী বলে জানা গেছে। শনিবার রাত ৩টায় সংবাদ পেয়ে তাকে উদ্ধার করে চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হয়। তবে বরিশাল নিয়ে গেলে সেখানে তার মৃত্যু হয়। এছাড়া ঘটনার পর থেকে আসামি পলাতক রয়েছেন। তাকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।




আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি বরিশাল ক্রাইম ট্রেস”কে জানাতে।
ই-মেইল করুনঃ[email protected]