ঘূর্ণিঝড়ের ইয়াসের প্রভাবে লালমোহনে বৃষ্টি-বাতাস, পানিবন্ধি চরাঞ্চলের মানুষ

Barisal Crime Trace
প্রকাশিত মে ২৫ মঙ্গলবার, ২০২১, ১০:৪৫ অপরাহ্ণ
ঘূর্ণিঝড়ের ইয়াসের প্রভাবে লালমোহনে বৃষ্টি-বাতাস, পানিবন্ধি চরাঞ্চলের মানুষ

লালমোহন (ভোলা) প্রতিনিধি: ধেয়ে আসছে ঘূর্ণিঝড় ‘ইয়াস’। ঝড়টির প্রভাবে দ্বীপজেলার ভোলার লালমোহন উপজেলায় সকাল থেকে থেমে বৃষ্টি ও প্রচণ্ড বাতাস বয়ে যেতে দেখা যাচ্ছে।

 

এছাড়াও নদীগুলোতে পানি বেড়েছে স্বাভিকের চাইতে অধিক। যার ফলে বেড়িবাঁধ ও চরাঞ্চলের শত শত মানুষ পানিবন্ধি রয়েছেন।

 

মঙ্গলবার দুপুর থেকে বিভিন্ন এলাকা থেকে এমন খবর আসতে থাকে সংবাদকর্মীদের কাছে। তবে ঝড়ের সার্বক্ষণিক ব্যাপারে খোঁজ খবর রাখছেন ভোলা-৩ আসনের সংসদ সদস্য নূরুন্নবী চৌধুরী শাওন। ক্ষয়ক্ষতি এড়াতে প্রশাসনকে সবর্দা প্রস্তুত থাকার নির্দেশ দিয়েছেন তিনি।

উপজেলার বিচ্ছিন্ন চর-কচুয়াখালীর বাসিন্দা আক্তার হোসেন জানান, ঘরের আশপাশে প্রচুর পানি জমেছে। এভাবে পানি বাড়তে থাকলে চরে থাকা অসম্ভব হয়ে যাবে।

 

অন্যদিকে, চর শাহজালালে পানি আশঙ্কাজনকভাবে বৃদ্ধি পাওয়ায় সেখানকার বাসিন্দারা দুপুরের দিকে ট্রলার যোগে নিরাপদ স্থানে এসে পড়েছেন।

 

লর্ডহার্ডিঞ্জ ইউনিয়ন দ্বীপবন্ধু পরিষদের সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন জুলহাস জানান, সকাল থেকেই পানি বৃদ্ধির কারণে বেড়িবাঁধের পাশে বাস করা মানুষের বসত ঘরে প্রবেশ করেছে নদীর জোয়ারের পানি। এতে করে সেখানের বাসিন্দারা চরম উৎকণ্ঠায় রয়েছেন।

 

প্রায় অর্ধশত পরিবারের এমন চিত্র দেখা গেছে। উপজেলা নিবার্হী অফিসার আল-নোমান বলেন, উপজেলার মানুষকে নিরাপদে রাখতে ১২২ টি আশ্রয়ণকেন্দ্র প্রস্তুত রাখা হয়েছে।

 

এছাড়াও সার্বিক পরিস্থিতি জানতে ও জানাতে একটি কন্ট্রোল রুম খোলা হয়েছে। মানুষ ও প্রাণীর জন্য ভিন্ন ভিন্ন দুইটি মেডিকেল টিম গঠন করা হয়েছে।

ইউএনও আরও বলেন, পর্যাপ্ত পরিমাণ শুকনো খাবার রয়েছে। মানুষজন আশ্রয় কেন্দ্রগুলোতে আসলেই এসব বিতরণ করা হবে।




আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি বরিশাল ক্রাইম ট্রেস”কে জানাতে।
ই-মেইল করুনঃ[email protected]