ভাইয়ের সাথে বিরোধে গাছেই নষ্ট হচ্ছে লিচু!

Barisal Crime Trace
প্রকাশিত মে ৩১ সোমবার, ২০২১, ১২:৩৪ অপরাহ্ণ
ভাইয়ের সাথে বিরোধে গাছেই নষ্ট হচ্ছে লিচু!

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ পাবনার ঈশ্বরদীতে ভাইয়ে ভাইয়ে বিরোধ থাকায় পুলিশের নিষেধাজ্ঞায় গাছেই নষ্ট হচ্ছে কৃষকের লাখ টাকার পাকা লিচু। ভুক্তভোগী কৃষক শামসুল হকের (৫৫) ১৫টি গাছের পাকা লিচু তার চোখের সামনে প্রতিদিনই ঝরে নষ্ট হচ্ছে।

শামসুল হকের বাড়ি উপজেলার সলিমপুর ইউনিয়নের জয়নগর মধ্যপাড়া গ্রামে। রবিবার ওই বাগানে গিয়ে দেখা যায়, পাকা লিচু অবিরত ঝরে পড়ে নষ্ট হয়ে যাচ্ছে।

ঈশ্বরদী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আসাদুজ্জামান জানান, ভাইদের মধ্যে বিরোধ থাকায় লিচু পাড়া নিয়ে সংঘর্ষের আশঙ্কা রয়েছে। এজন্য পুলিশের পক্ষ থেকে লিচু পাড়ায় নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়েছে।

ক্ষতিগ্রস্ত লিচু চাষি শামসুল হক জানান, তিনি নিঃসন্তান হওয়ায় তার দুই ভাই ও বোনেরা ষড়যন্ত্র করে তার সমস্ত জমিজমা দখলে নিতে উঠেপড়ে লাগে। সেই ষড়যন্ত্রের অংশ হিসেবে গত ২০২০ সালের ১০ ডিসেম্বর ভাগ্নি হিমু (২৪), ভাতিজা শিশির (২৩), ভাই এনামুল হক (৬০) ও আসাদুল হক (৫৮) একত্রিত হয়ে তাকে মারধর করেন। সেই ঘটনায় শামসুল হক বাদী হয়ে ঈশ্বরদী থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। ওই ঘটনায় আসামিরা উচ্চ আদালত থেকে জামিনে আসেন।

শামসুল হক অভিযোগ করেন, মামলাটি তুলে নিতে তাকে নানাভাবে হুমকি-ধামকি দেওয়া হচ্ছে। ওই ঘটনার জের ধরেই লিচু চাষি শামসুল হকের সাথে আবারও বিরোধ শুরু করেন তারা। একপর্যায়ে তারা লিচু বাগান দখলে নেওয়ার চেষ্টা করেন। গত ২৫ মে সেই ঘটনার বিবরণ দিয়ে শামসুল হক ঈশ্বরদী থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন। আসামিরাও শামসুল হকের বিরুদ্ধে থানায় একটি পাল্টা অভিযোগ দায়ের করেন।

মূলত সেই অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে ঈশ্বরদী থানা পুলিশ শামসুল হককে লিচু গাছ থেকে লিচু পাড়তে নিষেধ করে। যার ফলে লিচুর ভরা মৌসুম হওয়া সত্ত্বেও লিচু পাড়তে পারছেন না তিনি। এতে শামসুল হকের প্রায় ২ লাখ টাকার ক্ষতি হচ্ছে বলেও দাবি করেন তিনি। তবে ঘটনা তদন্তপূর্বক সকলের সহযোগিতা কামনা করেছেন করছি শামসুল হক।

এ বিষয়ে ঈশ্বরদী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আসাদুজ্জামান বলেন, লিচু পড়ে নষ্ট হলেও আমার কিছু যায় আসে না। ওই বাগানের লিচু পাড়তে যে যাবে, তাকেই গ্রেফতার করা হবে।




আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি বরিশাল ক্রাইম ট্রেস”কে জানাতে।
ই-মেইল করুনঃ[email protected]