যুবতীকে ধর্ষণের পর নদীতে ফেলে হত্যা! কারখানার নিরাপত্তাকর্মী গ্রেফতার

Barisal Crime Trace
প্রকাশিত এপ্রিল ২৭ মঙ্গলবার, ২০২১, ০৯:৫৩ পূর্বাহ্ণ
যুবতীকে ধর্ষণের পর নদীতে ফেলে হত্যা! কারখানার নিরাপত্তাকর্মী গ্রেফতার

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ গাজীপুরে চাকরির প্রলোভন দেখিয়ে মানসিক প্রতিবন্ধী এক যুবতীকে তুলে নিয়ে ধর্ষণের পর নদীতে ফেলে হত্যা করেছে এক কারখানার নিরাপত্তাকর্মীসহ কয়েক যুবক। ঘটনার সঙ্গে জড়িত এক নিরাপত্তাকর্মীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। ক্লুলেস এ ঘটনার প্রায় ১০ মাস পর রহস্য উন্মোচন করেছে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই)। সোমবার বিকেলে গাজীপুর পিবিআই’র পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মাকছুদের রহমান এ তথ্য জানিয়েছেন।

গ্রেফতারকৃতের নাম-মো. রুবেল হোসেন (২১)। সে গাজীপুরের কালীগঞ্জ থানাধীন নরুণ মধ্যপাড়া এলাকার ওসমান গনির ছেলে এবং ফ্যাক্টরীর নিরাপত্তাকর্মী।
গ্রেফতারকৃত রুবেল জানায়, ঘটনার দিন সকালে বাড়ির পার্শ্ববর্তী ইউনিলিভার ফ্যাক্টরীর স্থানীয় (নাগরী) গোডাউনে চাকরির খোঁজে আসে তাহমিনা। এসময় চাকরি দেওয়ার প্রলোভন দেখিয়ে তাহমিনাকে গোডাউন সংলগ্ন মেসে নিয়ে যায় নিরাপত্তাকর্মী রুবেল। সেখানে রুবেল ও তার অপর তিনজন সহযোগী পালাক্রমে তাহমিনাকে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। পরবর্তীতে বাসায় পৌঁছে দেয়ার কথা বলে সিএনজি চালিত একটি অটোরিকশায় উঠিয়ে ভিকটিমকে উলুখোলা ব্রীজে নিয়ে যায়। সেখানে আসামীরা ভিকটিমের মুখ চেপে ধরে ব্রীজের রেলিংয়ের উপর দিয়ে উচু করে বালু নদীতে নিক্ষেপ করে হত্যা করে।




আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি বরিশাল ক্রাইম ট্রেস”কে জানাতে।
ই-মেইল করুনঃ[email protected]